Skip to content

ঈদুল ফিতরের খুতবা, ঈদের নামাজের দোয়া ও নিয়ম

ঈদুল ফিতরের খুতবা

ঈদুল ফিতরের খুতবা। প্রিয় পাঠক বন্ধু সকলের প্রতি আমার সালাম আসসালামু আলাইকুম আশাকরি ভালো আছেন। খুবই গুরুত্বপূর্ণ একটি বিষয় এর উপর আজকের আলোচনা নির্ধারণ করা হয়েছে বিষয়ে আলোচনায় আপনাদের সকলের জন্য গুরুত্বপূর্ণ তথ্য প্রদান করার চেষ্টা করেছি আমরা। আমরা জানি আমাদের সামনে উপস্থিত হয়েছে ঈদুল ফিতর। এক্ষেত্রে আপনাদের সকলকে ঈদুল ফিতরের শুভেচ্ছা ও অভিনন্দন ঈদ মোবারক।

প্রিয় দ্বীনি ভাই ও বোন আপনাদের সহযোগিতার লক্ষ্যে আমরা ঈদুল ফিতরের খুতবা নিয়ে উপস্থিত হয়েছি আজকে। ঈদ উপস্থিত হওয়ার সাথে সাথেই অনেকেই ঈদুল ফিতর সম্পর্কিত খুতবা গুলো জানতে আগ্রহী জানার জন্য অনলাইনে অনুসন্ধান করছেন। এক্ষেত্রে আমরা কুরআন ও হাদিসের আলোকে ঈদুল ফিতরের খুতবা গুলো প্রদান করব আপনাদের মাঝে। চেষ্টা করেছি ঈদুল ফিতর উপলক্ষে গুরুত্বপূর্ণ আলোচনা গুলো আপনাদের মাঝে উপস্থাপন করার। এক্ষেত্রে আমরা কতটা সফল কামই হয়েছি তা আপনাদের উপর নির্ভর করবে সুতরাং গুরুত্বপূর্ণ এই খুতবা গুলো সম্পর্কে জানুন।

ঈদুল ফিতরের খুতবা

অনেকেই রয়েছেন যারা বিষয়ভিত্তিক খুতবা গুলো অনুসন্ধান করে থাকেন পড়ে জ্ঞান অর্জনের লক্ষ্যে। এছাড়াও অনেক আলেম-ওলামাগণ রয়েছেন যারা খুতবা প্রদানের লক্ষ্যে খুতবার বিষয় ভিত্তিক বিভিন্ন কুরআনের আয়াত ও হাদিস এর আলোকে খুতবা সম্পর্কে ধারণা নিয়ে থাকেন অনলাইন থেকে। এক্ষেত্রে আমরা ঈদুল ফিতর সম্পর্কিত বিভিন্ন আয়াত ও হাদিস থেকে বর্ণিত আলোচনাগুলো প্রদান করব এখানে আশা করছি আপনারা যারা এই খুতবা গুলো অনুসন্ধান করে আমাদের ওয়েবসাইটে এসেছেন তারা এখান থেকে আপনাদের প্রয়োজন মত খুতবা পেয়ে যাবেন। ঈদুল ফিতর সম্পর্কে বিভিন্ন হাদিস রয়েছে বিভিন্ন আয়াত রয়েছে এক্ষেত্রে আমরা গুরুত্বপূর্ণ কয়েকটি হাদিস এর উপর ভিত্তি করে খুতবা প্রদান করছে এক্ষেত্রে আপনি অবশ্যই যাচাই করে খুতবা গ্রহণ করবেন।

ঈদের নামাজ : ঈদের নামাজের জন্য কোনো আজান ও ইকামত নেই। তবে জুমআর নামাজের মতোই উচ্চ আওয়াজে কুরআন তেলাওয়াতের মাধ্যমে ঈদের নামাজ আদায় করতে হয়।

ঈদের নামাজের পার্থক্য : ঈদের নামাজের জন্য পার্থক্য হলো অতিরিক্ত ৬টি তাকবির দিতে হবে। প্রথম রাকাআতে ‘আল্লাহু আকবার’ বলে হাত বেঁধে অতিরিক্ত তিন তাকবির দিয়ে সুরা ফাতিহা পড়া। দ্বিতীয় রাকাআতে সুরা মিলানোর পর অতিরিক্ত তিন তাকবির দিয়ে রুকতে যাওয়া।

নামাজের নিয়ত: নাওয়াইতু আন উসাল্লিয়া লিল্লাহি তায়ালা রাকয়াতাই সালাতি ঈদিল ফিতর, মায়া ছিত্তাতি তাকবীরাতি ওয়াজিবুল্লাহি তায়ালা ইকতাদাইতু বিহাযাল ইমাম, মুতাওয়াজ্জিহান ইলা জিহাতিল কাবাতিশ শারীফাতি আল্লাহু আকবার।

অর্থ: ঈদের দুই রাকাআত ওয়াজিব নামাজ অতিরিক্ত ৬ তাকবিরের সঙ্গে এই ইমামের পেছনে কেবলামুখী হয়ে আল্লাহর জন্য আদায় করছি… আল্লাহু আকবার।

খুতবা : ঈদের নামাজ পড়ার পর ইমাম খুতবা দেবে আর মুসল্লিরা খুতবা মনোযোগের সঙ্গে শুনবে। অবশ্য অনেকেই খুতবা না দেয়ার ব্যাপারে শিথিলতার কথা বলেছেন। খুতবা না দিলেও ঈদের নামাজ আদায় হয়ে যাবে বলে মত দিয়েছেন।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

%d bloggers like this: