টিপস

এম এম কিট খাওয়ার নিয়ম। M M Kit খেলে কি হয় ? এটির কাজ কি বিস্তারিত

এম এম কিট খাওয়ার নিয়ম। এছাড়াও এই বিষয়ে বিস্তারিত আলোচনা থাকবে এই পোস্টে। সুতরাং আপনারা যারা এই কিট সম্পর্কে জানেন না কিংবা ইতিমধ্যে এই কিট খেয়ে আসতে চান তাদের জন্য একটি খুবই গুরুত্বপূর্ণ পোস্ট হতে চলেছে এটি। এটি খাওয়ার নিয়ম ও সঠিক পদ্ধতি সম্পর্কে জানলে আপনি অবাক হবেন। অনেকেই রয়েছেন যারা এটি সঠিক ব্যবহার সম্পর্কে জানে না শুধুমাত্র নিয়ম অনুযায়ী খেয়ে থাকে। আবার অনেকেই রয়েছে যারা নতুন এই নামটির সাথে পরিচিত তারা এর খাওয়ার নিয়ম সম্পর্কে জানেন না।

সুতরাং আজকের পোস্টটিতে আমরা আলোচনা করব এম এম কিট সম্পর্কে। আশা করছি এখান থেকে আপনি এই বিষয়ে বিস্তারিত সকল তথ্য জানতে পারবেন। এটি কি ? কিভাবে কাজ করে, কোন কোন ক্ষেত্রে ব্যবহার করতে পারবেন বিস্তারিত সকল তথ্য দিয়ে আপনাদের সহযোগিতা করা হবে। সুতরাং আপনারা যারা এই বিষয়ে জানতে আগ্রহী আশা করছি সম্পূর্ণ পোষ্টের সাথে থেকে গুরুত্বপূর্ণ এই কিট সম্পর্কে বিস্তারিত জানতে পারবেন।

অনেকেই এই বিষয়ে জানতে আগ্রহী হয়ে অনলাইনে অনুসন্ধান করেন বিষয়টি আমাদের মাঝে পরিষ্কার হওয়ার পরেই আমরা এই পোস্টটি লিখতে আগ্রহ প্রকাশ করেছি। আশা করছি আপনারা এখান থেকে গুরুত্বপূর্ণ বিষয়গুলো জেনে উপকৃত হবেন । এছাড়াও যারা এই নামটির সাথে প্রথম পরিচিত তারা এখান থেকে পুরো পোস্টটি পড়ার অনুরোধ রইল।

এম এম কিট কি?

অনেকেই এই নামটি অন্যের মুখে শুনেছেন কিংবা অন্য মাধ্যমে শুনেছেন । কিন্তু এখন পর্যন্ত এটি কি এই বিষয়ে বিশেষ সঠিক তথ্য জানতে ব্যর্থ। এমন ব্যক্তিগণ অনলাইনে অনুসন্ধান করেন এটি কি এ বিষয়ে জানার জন্য। আপনাদের প্রয়োজনীয় যে কোন বিষয়ে আপনার চাইলেই অনলাইন থেকে জেনে নিতে পারেন। সুতরাং এই কিট সম্পর্কে জানতে আগ্রহী ব্যক্তিগণ এখান থেকে এই বিষয়ে জানতে পারবেন।

সহজে গর্ভবতী হওয়ার টিপস

এম এম কিট ঔষধ কি কাজ করে

অনেকেই জানতে আগ্রহী হয়ে থাকেন এই ওষুধে কি কাজ করেন এ বিষয়ে জানার জন্য। এক্ষেত্রে আমরা এখানে এ বিষয়টি উল্লেখ করছি। সুতরাং এখান থেকে আপনি জানতে পারবেন ওষুধ কি কি কাজ করেন। এমএন কিট ওষুধটি গর্ভধারণের ৬৩ অর্থাৎ ৯ সপ্তাহের মধ্যে মাসিক নিয়মিতকরণের জন্য ব্যবহার করা হয়। কোন রকম অস্ত্র প্রচার ছাড়াই এই ওষুধের মাধ্যমে মাসিক নিয়মিতকরণ করা যায়।

এম এম কিট খাওয়ার নিয়ম

এটি খাওয়ার নিয়ম সম্পর্কে জানতে আগ্রহী ব্যক্তিগণ অনলাইন সহ পরামর্শ নিয়ে থাকেন। তবে অনেক সময় সরাসরি ডাক্তারের কাছে পরামর্শ না পাওয়ায় অনলাইন থেকে এ বিষয়ে জানতে আগ্রহ প্রকাশ করে তাই আমরা বিশেষজ্ঞ ডাক্তারের পরামর্শ অনুযায়ী আপনাকে এটি খাওয়ার নিয়ম সম্পর্কে জানাবো সুতরাং আপনারা যারা নিয়ম সম্পর্কে জানতে আগ্রহী তারা এখান থেকে খাওয়ার নিয়ম সম্পর্কে জেনে নিতে পারেন।

এম এম কিট টেবলেট দুই ধাপে খাওয়াতে হয়। প্রথমে  ধাপে মিফেপ্রিস্টোন ২০০মি.গ্রাম অর্থাৎ  বড় যে টেবলেটটি  ডাক্তারের সামনে মুখে খেতে হবে। দ্বিতীয় ধাপে ২৪-৪৮ ঘন্টার মধ্যে মিসােপ্রােস্টল ২০০ মাইক্রো গ্রাম অর্থাৎ ছোট চারটি টেবলেট জিহবা নিচে অন্তত আধা ঘণ্টা রাখতে হবে।কোন রকম থুথু ফেলা যাবে না। আধা ঘণ্টার মধ্যে টেবলেট চারটি শেষ না হলে বাকি অংশ পানি দিয়ে খেয়ে নিতে হবে।

Back to top button
Close