Skip to content

কিভাবে বুঝবেন আপনার সন্তান মাদকাসক্ত হয়েছে কিনা

মাদকাসক্ত

প্রিয় পাঠক বন্ধু আজকের আলোচনায় আপনাদের স্বাগতম। বর্তমানের যুবসমাজ ঝুঁকির মুখে অবস্থান করছে। বর্তমান সময়ের পরিবেশ ও যুবকদের জীবন পরিচালনার গতি অনেকটা বিপদের মুখে। চারদিকে প্রতিনিয়ত মাদক সম্পর্কিত নিউজ এর সরাসরি। বর্তমান যুবসমাজ মাদক সেবন করছে ব্যাপকহারে। এক্ষেত্রে আমরা আমাদের আলোচনার মাধ্যমে আপনাদের কিছু তথ্য প্রদান করবো যার মাধ্যমে আপনার সন্তান ও পরিবারের অন্য কোন ব্যক্তি মাদকে আসক্ত হয়েছে কিনা এ বিষয়ে সম্পর্কে জানতে পারবেন। অবশ্যই এই বিষয়গুলো সম্পর্কে জানার প্রয়োজন রয়েছে আপনাদের এই বিষয়ে সম্পর্কে জানানোর জন্যই আজকের আলোচনা নিয়ে এসেছি আমরা। প্রিয় পাঠক বন্ধু আপনারা যারা আমাদের ওয়েবসাইটে অবস্থান করছেন তারা কোনোভাবেই মাদকের সাথে জড়িত থাকলে আপনাদের বিনীত অনুরোধ জানাচ্ছি মাদক থেকে সরে আসুন এটি আপনার ও আপনার পরিবারের ক্ষতি সাধন করবে বলে বলা হচ্ছে।

আপনি আপনার সন্তানও পরিবারের অন্য সদস্য মাদকে আসক্ত রয়েছে কিনা এই বিষয়ে সম্পর্কে জানতে আগ্রহী হয়ে থাকলে আমাদের সাথে থাকতে পারেন। আমরা আমাদের আলোচনার মাধ্যমে আপনাদের জানাবো আপনার সন্তান ও পরিবারের বাকি সকল সদস্যের মধ্যে কেউ মাদকাসক্তি রয়েছে কিনা এই বিষয়ে সম্পর্কে জানার সাধারণ কিছু লক্ষণ রয়েছে । আজকের আলোচনায় আমরা সেই বিষয় সম্পর্কে আপনাদের জানাব কিভাবে বুঝবেন মাদকাসক্তি রয়েছে কিনা আপনার পরিবারের কোনো সদস্য।

আপনার সন্তান মাদকাসক্ত হয়েছে কিনা

আপনি কি আপনার সন্তানকে নিয়ে ভয় রয়েছেন। কোনভাবে বুঝতে চেষ্টা করছেন আপনার সন্তান মাদকাসক্তি লিপ্ত রয়েছে কিনা। তাহলে সাধারণভাবে তার চলাফেরা পরিবর্তন লক্ষ্য করুন। দেখুন আগের তুলনায় তার রাগ বেশি হয়েছে কিনা। এছাড়াও ঘুম খাওয়া-দাওয়া হয় অনিয়ম আনছে কিনা এ বিষয়ে লক্ষ্য রাখার প্রয়োজন রয়েছে। আগের তুলনায় অনেক রাত অব্দি জেগে থাকা। সময়মতো খাওয়া দাওয়া না করা। এছাড়াও পরিবারের অন্য সদস্যদের সাথে খারাপ আচরণ করা এই সমস্ত হঠাৎ করে হয়ে থাকলে অবশ্যই আপনার সন্তানকে চোখে চোখে রাখুন প্রয়োজন রয়েছে। সন্তানদের হাতে অতিরিক্ত টাকা প্রদান করা মোটেই ঠিক কাজ নয়। এ ক্ষেত্রে বাড়তি টাকার জন্য আপনাদের সাথে খারাপ আচরণ কিংবা জোরজবরদস্তি করার মাধ্যমে আপনি জানতে পারবেন আপনার সন্তান মাদকাসক্তি লিপ্ত রয়েছে। অবশ্যই বাচ্চাদের খেয়াল খবর রাখার প্রয়োজন রয়েছে অন্যথায় আপনার বাচ্চা ভুল পথে পা হতে পারে। এছাড়া মাদকাসক্তি হয়ে থাকলে কিছু লক্ষন থেকে থাকে সেগুলো তুলে ধরা হবে আপনাদের মাঝে।

* সামান্য ব্যাপারেই রাগ করা, বিরক্ত হতে থাকা

* মিথ্যা কথা বলা, অতিরিক্ত  সতর্ক থাকা

* একা একা থাকা, অধিক রাত জেগে থাকা

* কথা দিয়ে কথা না রাখা, স্মৃতিশক্তি কমে যাওয়া বিচার-বিবেচনা বিচক্ষণতা ক্ষমতা কমে যাওয়া

* মূল্যবান জিনিসপত্র চুরি করা বা না বলে তা বিক্রি করে দেয়া

* প্রতিদিন নির্দিষ্ট বা অনির্দিষ্ট সময় পর্যন্ত বাড়ির বাইরে থাকা

* অদ্ভুত অদ্ভুত ধরনের বন্ধু-বান্ধবের আনাগোনা বেড়ে যাওয়া

* পোশাক-পরিচ্ছদের রুচির বড় রকমের পরিবর্তন হওয়া

* আসক্ত বন্ধুদের বা অসম লিঙ্গ ও বয়সীদের সঙ্গে মেলামেশা করা বা বন্ধুত্ব করা

* পড়াশোনায় অমনোযোগী হওয়া, স্কুল/ কলেজ পালানোর অভ্যাস হওয়া

* রিডিং রোমের দরজা লাগিয়ে বন্ধু বান্ধবীদের নিয়ে পড়ার কথা বলে  আড্ডাবাজি করা

* নিজেকে আড়ালে রাখা বা হঠাৎ অতিরিক্ত আধুনিকভাবে নিজেকে উপস্থাপন করা

* স্বাস্থ্য নষ্ট হয়ে যাওয়া, চেহারা সুরতও নষ্ট হয়ে যাওয়া, অপরিচ্ছন্ন হয়ে যাওয়া

* প্রতিদিনই বিভিন্ন বায়নায় হাত খরচ বেড়ে যাওয়া

* ক্ষুধা নষ্ট হয়ে যাওয়া বা একটা বিশেষ খাবার (মাংস, চানাচুর, কোল ড্রিংক)  অতিরিক্ত পরিমাণে খাওয়া।

* ধর্মীয় আচার আচরণ বা সোশ্যাল নর্মসকে অবজ্ঞা করা বা ইত্যাদি বিষয়ে অদ্ভুত যুক্তি তর্ক উপস্থাপন করা বা ঠাট্টা তামাশা করা।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

%d bloggers like this: