Skip to content

ঢাকা টু বরিশাল লঞ্চের কেবিন ভাড়া, ও সময়সূচী অনলাইন বুকিং

ঢাকা টু বরিশাল লঞ্চে

ঢাকা টু বরিশাল লঞ্চের কেবিন ভাড়া, ও সময়সূচী অনলাইন বুকিং: আপনি কি ঢাকা থেকে বরিশাল ভ্রমণ করতে যাচ্ছেন তাহলে আপনার জন্য হতে পারে লঞ্চ সুন্দর একটি পরিবহণ। আর আজকের আলোচনায় আমরা ঢাকা টু বরিশাল ভ্রমণকৃত লঞ্চের বিষয়ে বিস্তারিত তথ্য প্রদান করব অবশ্যই ভ্রমণ সহযোগী সকল তথ্য সম্পর্কে জানতে পারবেন আমাদের আলোচনা থেকে। এক্ষেত্রে আপনারা যারা ঢাকা থেকে বরিশাল যেতে চাচ্ছেন লঞ্চের মাধ্যমে তারা আমাদের পুরো আর্টিকেলটি পড়ার মাধ্যমে ভ্রমণ সহযোগী সকল তথ্য সম্পর্কে জানার মাধ্যমে নিরাপদ ভ্রমণ নিশ্চিত করতে পারবেন। আমরা আপনাকে লঞ্চের সময়সূচি কেবিন ভাড়া সহ অনলাইনের মাধ্যমে কেবিন বুকিং করার পদ্ধতি সম্পর্কে জানাবো। যেগুলো সম্পর্কে জানা খুবই গুরুত্বপূর্ণ বলে মনে করছি আমরা।

লঞ্চে ভ্রমণ করার আগ্রহ দেখিয়ে থাকেন অনেকেই। বাংলাদেশে লঞ্চ ভ্রমণের ক্ষেত্রে ব্যাপক জনপ্রিয় হচ্ছে ঢাকা টু বরিশাল। নৌপথে ভ্রমণের অন্যতম সেরা সুন্দর পরিবেশ ও সকল কিছু মিলিয়ে বেশ আনন্দ-পূর্ব ভ্রমণ দিতে পারে এই লঞ্চ। তবে জানতে হবে সময়সূচী টিকিটের মূল্য এবং কেবিন বুকিং এর বিষয়টি। সমস্ত বিষয় সম্পর্কে জানার পরবর্তী সময়ে আনন্দ-পূর্ণ ভ্রমণ নিশ্চিত করতে পারবেন লঞ্চের মাধ্যমে।

প্রতিনিয়ত অসংখ্য মানুষ ঢাকা থেকে বরিশাল ভ্রমণ করছেন এই পদ্ধতিতে শুধু ঢাকা থেকে বরিশাল নয় বরিশাল থেকে অসংখ্য মানুষ প্রতিদিন ঢাকায় আসেন লঞ্চ ব্যবহার করে। সুবিধাজনক আনন্দ পূর্ণ ভ্রমণ নিশ্চিত করার জন্য আজকের আলোচনাটি আপনার জন্য বিশেষ সহযোগী। অন্যান্য পরিবহনের থেকে তুলনামূলক বেশি আরামদায়ক হচ্ছে লঞ্চ ভ্রমণ তবে অন্যান্য যানবহনে যেমন যানজট সহ সড়ক দুর্ঘটনার বিষয় রয়েছে তেমনি রয়েছে লঞ্চেও। তবে সড়ক দুর্ঘটনা থেকে অনেক কম দুর্ঘটনার সম্মুখীন হয়ে থাকে লঞ্চ। যাইহোক আমরা সেই বিষয়ে কথা বলব না আমরা আপনাদের সহযোগী তথ্য প্রদান করার উদ্দেশ্য নিয়ে আজকের আলোচনা নিয়ে এসেছি আলোচনা সাপেক্ষে সেই তথ্যগুলো সঠিকভাবে উপস্থাপন করব আপনাদের মাঝে।

লঞ্চ ভুবনের সুবিধা

আপনারা যারা লঞ্চ ভ্রমণ করতে যাচ্ছেন তারা অবশ্যই সুবিধা গুলো সম্পর্কে জেনে নিতে পারেন। অন্যান্য পরিবহনের থেকে তুলনামূলক বেশি সুবিধা প্রদান করে থাকেন লঞ্চ। এক্ষেত্রে নিচে আমরা লঞ্চের সকল সুবিধা গুলো তুলে ধরছি।

  • লঞ্চে ভ্রমন করলে যেমন প্রকৃতি সম্পর্কে মেশা যায় এবং ভ্রমন করা যায়।
  • যামযটহীন ভ্রমন করা যায় লঞ্চের মাধ্যমে।
  • আপনি লঞ্চে ঘুমিয়ে ভ্রমন করতে পারবেন।
  • খাদ্য ও পানির সব কিছু ব্যবস্থা রয়েছে।
  • এবং আপনি চাইলে আপনার ব্যবহার কার গাড়ি নিয়ে ভ্রমন করতে পারনেম লঞ্চে।
  • পরিবার নিয়ে ভ্রমনের জন্য উন্নতম যানবাহন হলো লঞ্চ।

ঢাকা টু বরিশাল রোডে চলাচলকারী লঞ্চের তালিকা

এই পথে যতগুলো লঞ্চ চলাচল করে থাকে তাদের একটি তালিকা তৈরি করেছি আমরা। যার মাধ্যমে আপনি আপনার সময় অনুযায়ী কোন বংশে ভ্রমণ করতে পারবেন এ বিষয় সম্পর্কে জানতে পারবেন। এছাড়াও কোন লঞ্চের ভাড়ার তালিকা কিরকম শ্রেণীভেদে সমস্ত বিষয় সম্পর্কে জানানোর চেষ্টা করব আমরা । তো কথা না বাড়িয়ে সরাসরি লঞ্চগুলোর সাথে পরিচয় করে দেওয়া যাক। নিচেই লঞ্চের নামগুলো তুলে ধরছি আমরা।

  • এমভি সুরভী – ৭,এমভি সুরভী – ৮,এমভি সুরভী – ৯
  • এমভি সুন্দরবন – ৮,এমভি সুন্দরবন – ১০,এমভি সুন্দরবন- ১১
  • এমভি পারাবত – ৮,এমভি পারাবত- ১০,এমভি পারাবত – ১১,এমভি পারাবত – ১২
  • এমভি টিপু – ৭,এম ভি ফারহান-৮এমভি টিপু – ৭,এম ভি ফারহান-৮
  • এমভি কামাল-১
  • এ্যাডভেঞ্চার – ৯,এ্যাডভেঞ্চার – ১
  • এমভি কীর্তনখোলা – ২,এমভি কীর্তনখোলা- ১০
  • এমভি গ্রীন লাইন-২,এমভি গ্রীন লাইন-৩
  • এমভি মানামী
  • এমভি কুয়াকাটা- ২

ঢাকা টু বরিশাল লঞ্চের কেবিন ভাড়ার তালিকা

অনেকেই কেবিন ভাড়ার বিষয় সম্পর্কে জানার জন্য আগ্রহী হয়ে থাকেন। এক্ষেত্রে আমাদের আলোচনার মাধ্যমে এই বিষয়টি তুলে ধরছি। ভ্রমণের পূর্বে ভ্রমণ করার সম্পর্কে জানার জন্য আগ্রহী ব্যক্তিদের কে আমরা শ্রেণীভেদে কেবিন ধারার বিষয় সম্পর্কে জানানোর চেষ্টা করছি। বিভিন্ন শ্রেণীর কেবিন রয়েছে সমস্ত শ্রেণীর কেবিনের নাম উল্লেখ করে সাথে ভাড়া বিষয়টি তুলে ধরা হয়েছে।

ডেক শ্রেনীঃ ২০০ টাকা
সোফাঃ ৫০০-৬০০ টাকা
সিঙ্গেল কেবিনঃ ১০০০ টাকা
ডাবল কেবিনঃ ১৮০০ টাকা
 অথবা, লঞ্চে সিঙ্গেল কেবিনের ভাড়া ৮৫০ টাকা, ডাবল কেবিনের ভাড়া ১৬০০, ডেকে ২৫০ টাকা।

ঢাকা টু বরিশাল লঞ্চের টিকিট কাউন্টার নাম্বার

 

লঞ্চ সমূহ 
কোম্পানি 
কাউন্টার 
মোবাইল নাম্বার
এমভি কুয়াকাটা- ২ মেসার্স ডলার এন্টারপ্রাইজ ডি এস মার্কেট, কাকলির মোড়, সদর রোড, বরিশাল। ০১৭১১-৩২৫৯১৭
এমভি মানামী ২৩৯/৪০ সিটি মার্কেট, উদয়ন স্কুলের দোতলায়, ০১৩০৯-০৩৩৫৮৬
এমভি গ্রীন লাইন-২,এমভি গ্রীন লাইন-৩ মেসার্স গ্রীন লাইন ওয়াটার ওয়েজ, সদর রোড, বরিশাল। ০১৭৩০-০৬০০৩৩ম্যানেজার-০১৯৭০-০৬০০৩৩
এমভি কালাম খান- ১ মেসার্স ফারুক শিপিং লাইন্স সদর রোড, বরিশাল। ০১৭২০-৬৭৬৯১৩
এ্যাডভেঞ্চার – ৯,এ্যাডভেঞ্চার – ১ মেসার্স নিজাম শিপিং লাইন্স, প্যারারা রোড,  বরিশাল। ম্যানেজার- ০১৭২১-৯৪৪৬৬৯০১৭১৪-২৩৩৯০০

০১৯১১-৬৬৭৩১৮

এমভি কীর্তনখোলা – ২,এমভি কীর্তনখোলা- ১০  মেসার্স সালমা শিপিং লাইন্স সদর রোড, বরিশাল। ম্যানেজার-০১৭১১-৩৩৬৮৭১সুপারভাইজার-০১৭১৭-৮৬০৩৩৩
এমভি কামাল-১ মেসার্স হাজী কামাল শিপিং লাইন্স সদর রোড, বরিশাল। সুপারভাইজার-০১৭১২-৩৮২৪১৪
এমভি সুরভী – ৭,এমভি সুরভী – ৮,এমভি সুরভী – ৯  মেসার্স সুরভী নেভিগেশন কোং প্যারারা রোড, বরিশাল। কাউন্টার- ০১৭১২-৭৭২৭৮৬
  এমভি পারাবত – ৮,এমভি পারাবত- ১০,এমভি পারাবত – ১১,এমভি পারাবত – ১২ মেসার্স পারাবত শিপিং লাইন্স ফজলুল হক এভিনিউ, বরিশাল। ম্যানেজার-০১৭১৫-৩৮৪১৩১– ০১৭১১-৩৪৬০৮০

– ০১৫৫২-৪২৯৭৪৬

এমভি টিপু – ৭,এম ভি ফারহান-৮ মেসার্স আগরপুর নেভিগেশন কোং ফজলুল হক এভিনিউ, বরিশাল। সুপারভাইজার-০১৭৭৭-৬৮৩৯৯৮-০১৭১৬-২৪৮২২২
এমভি কামাল-১  মেসার্স হাজী কামাল শিপিং লাইন্স সদর রোড, বরিশাল। সুপারভাইজার-০১৭১২-৩৮২৪১৪
এমভি সুন্দরবন – ৮,এমভি সুন্দরবন – ১০,এমভি সুন্দরবন- ১১ মেসার্স সুন্দরবন নেভিগেশন কোং ফজলুল হক এভিনিউ, বরিশাল। কাউন্টার-   ০১৭১১-৩৫৮৮৩৮ম্যানেজার- ০১৭৫৮-১১৩০১১

০১৭১৮-০২৪০৬৭

ঢাকা টু বরিশাল লঞ্চ ছাড়ার সময়সূচী

রুট সময়সূচী
ঢাকা থেকে বরিশাল ভোর- ৬.১৫ মিনিট, রাত- ৭.৩০ মিনিট
বরিশাল থেকে সদরঘাট, ঢাকা সকাল- ৯.১৫ মিনিট, রাত- ৯.১৫ মিনিট

রাতের সময়:

রুট সময়সূচী
ঢাকা থেকে বরিশাল বিকাল- ৫টা বিকাল- ৫.৩০ মিনিট, সন্ধ্যা- ৬টা
বিকাল-৬.১৫ মিনিট, রাত- ৯.৪৫ মিনিট।
বরিশাল থেকে সদরঘাট, ঢাকা দুপুর- ১২টা বিকাল- ৩টা বিকাল-৩.১৫ মিনিট,
সন্ধ্যা- ৬.৩০ মিনিট, রাত- ৭.৩০ মিনিট।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

%d bloggers like this: