টিপস

ব্রণ দূর করার ঘরোয়া উপায় 2022

ব্রণ দূর করার ঘরোয়া উপায়

মুখে ব্রণ থাকলে আয়নার সামনে ধারাতে সবারই খারাপ লাগে। বিশেষ করে সকালে ঘুম থেকে উঠে আয়নার সামনে দাড়াতে কার ভাল লাগে কলেন ত। এভাবে সকালটা শুরু হলে কারও লোকের সামনে যেতে মন চাইবে না। যার ফলে আপনার রাগ হবে, মুড অফ, মেজাজ গরম থাকে যার প্রভাব পড়বে ব্যাক্তিগত বা প্রফেশনাল জীবনে।

মুখ ভরা ব্রণ নিয়ে ডাক্তারের কাছে যেতে মন চাইবে না। সবচেয়ে ভাল হয় যদি ঘরোয়া উপায়ে ব্রণ দূর করা যায়। তাই আজ আমরা নিয়ে এসেছি ঘরোয়া উপায়ে ব্রণ দূর করার উপায় নিয়ে। তাহলে চলুন  দেরি না করে দেখে আসি।

ব্রণ কেন হয়? ব্রণ দূর করার ঘরোয়া উপায়?

সাধারনত মুখে ব্রণ দেখা দেয় বয়সঃসন্ধির সময়। ১২ থেকে ১৯ বছরের সময়কে টি-এজ বলে। এই সময়ে ব্রণের সমস্যাটি বেশি দেখা যায়। এই সময় ছেলে মেয়ে উভয় এর মধ্যে হরমোনগত কিছু পার্থক্য শুরু হয়। হরমোন ক্ষরনের মাত্রর কোন ভারসাম্য থাকে না। যার ফলে অতিরিক্ত তেল বা সিবাম এর পরিমান কমে যায়। যার কারনে লোমকূপ বন্ধ হয়ে যায় এবং ব্যাকটেরিয়া আক্রন্ত করে। আর এই ব্যাকটেরিয়া নামক জীবণু থেকে মুখে ব্রণ হয়। শুধু বয়সঃসন্ধি কালে ব্রণ হয় সেটা নয় পিরিয়ডের সময়ও মেয়েদের ব্রণ দেখা দেয়।

ব্রণ দূর করার ঘরোয়া উপায়?

ব্রণ কেন হয় বিস্তারিত বললাম। এবার বলব কিভাবে আপনি সহজেই ঘরোয়া উপায়ে মুখের ব্রণ করা যায়। আপনি চাইলে খুব সহজেই আপনার মুখের ব্রণ দূর করতে পারবেন। ব্রণ দূর করার ঘরোয়া উপায়?

১। নিমপাতা

ব্রণ দূর করার ঘরোয়া উপায়

আমরা সবাই জানি নিম পাতা সকল রোগের সমাধান। কিন্ত আমরা কেউ জানি না ব্রণ দূর করতে নিম পাতা ব্যবহার। ব্রণ দূর করার জন্য নিমপাতা খুব কার্যকরি সমাধান। নিমপাতার অব্যর্থ গুণের কথা আমরা জেনে গেছি। এটি অ্যান্টি ব্যাকটেরিয়া উপাদান যা ব্রণের জীবাণু দূর করে। তাই ব্রণ দূর করতে নিমপাতা ব্যাবহার করুন।

উপকরণ:

৫ থেকে ৭ টি নিমপাতা
গোলাপজল
ব্যবহারের নিয়ম:

প্রথমে নিমপাতা ভাল করে বেটে নিন। এবার নিমপাতার সাথে গোলাপজল মিশিয়ে নিন। এবার এই মিশ্রণটি আপনার মুখে ২০ মিনিট লাগিয়ে রাখুন তার পর ঠান্ড পানি দিয়ে ধুয়ে ফেলুন ।  এই প্যাকটি প্রতি সপ্তাহে ২ বার ব্যবহার করুন।ব্রণ দূর ক

২। তুলসী পাতার রস

ব্রণ দূর করার ঘরোয়া উপায়

তুলসী পাতার যে অশেষ গুণ, তা তো আমরা সবাই জানি ব্রণর সমস্যা সমাধানেও তাহলে কাজে লাগিয়ে নিন তুলসী পাতাকে।

উপকরণ:

পরিমাণমতো তুলসী পাতার রস নিন ব্রণ দূর করার ঘরোয়া উপায়
পদ্ধতি:

তুলসী পাতা থেকে রস বের করে নিন। সেই রস ব্রণর ব্রণের উপর মেসাজ করুন। ১০ থেকে ১৫ মিনিট রেখে ধুয়ে ফেলুন। পারলে রোজ করুন।

৩। কমলালেবুর প্যাক

আমরা সবাই কমলালেবু খেতে ভালবাসি।কিন্ত এবার কমলালেবু শুধু না খেয়ে ব্রণর জায়গাতেও লাগান। দেখবেন উপকার পাবেন।

উপকরণ:

কয়েক কোয়া কমলালেবু
মুসুরির ডাল
মুলতানি মাটি
পদ্ধতি:

মুসুরির ডাল বেটে রাখুন। এর সাথে কমলালেবুর কোয়া বেটে দিতে পারেন বা রসও ব্যবহার করতে পারেন। এর সঙ্গে মুসুরির ডাল বেটে মিশিয়ে নিন। মিশ্রণটা মুখে লাগিয়ে রাখুন ৩০মিনিট মতো। তারপর ঠান্ডা জল দিয়ে ধুয়ে নিন। দেখবেন ব্রণও কমছে, ত্বকের উজ্জ্বলতাও বাড়ছে।

৪। পুদিনা পাতার প্যাক

পুদিনা পাতা আমাদের ফ্রেস করতে খুব সাহায্য করে। ব্যাকটেরিয়ার ক্ষতিকারক দিক থেকেও পুদিনা রক্ষা করে। তাই ব্রণর জন্য পুদিনা ব্যবহার করুন। ব্রণ দূর করার ঘরোয়া উপায়

উপকরণ:

কয়েকটি পুদিনা পাতা

পদ্ধতি:

পুদিনা পাতা বেটে নিন। সেই বাটাও ব্যবহার করতে পারেন। তাছাড়া শুধু রসও নিতে পারেন। সেটা লাগিয়ে নিন ব্রণর জায়গায়। লাগিয়ে রাখুন ১০ মিনিট মতো। তারপর ধুয়ে ফেলুন। দেখবেন একটা ফ্রেস ফিল হচ্ছে আর ব্রণও আস্তে আস্তে কমে যাচ্ছে।

Back to top button
Close