Skip to content

মুখের ছোট ছোট ব্রণ দূর করার উপায়, মুখে ছোট ছোট ফুসফুড়ি ও ব্রণে ভরে গেছে, কি করবো

মুখের ছোট ছোট ব্রণ দূর করার উপায়

মুখের ছোট ছোট ব্রণ দূর করার উপায় , এবং ফুসফুড়ি দূর করার উপায় । প্রিয় বিয়ার্স আজকে আমরা আলোচনা করবো মুখের ছোট ছোট ফুসকুড়ি ও ব্রণ দূর করার উপায় গুলি সম্পর্কে। প্রতিদিন বিপুলসংখ্যক মানুষ অনলাইনে আসেন এই বিষয়ে জানার জন্য। তবে এই বিষয় সম্পর্কে তেমন কোনো ওয়েবসাইট এখন পর্যন্ত সঠিক তথ্য দিয়ে সহযোগিতা করতে পারেনি। এ কারণেই আজকের এই পোস্টে পোস্টে আমরা এই বিষয়ে বিস্তারিত আলোচনা করব সুতরাং যারা এই বিষয় সর্ম্পকে জানতে চান তারা পুরো পোস্টের সাথে থাকবেন। আমরা আপনাদের সুবিধার্থে এই পোষ্টের মাধ্যমে জানাবো কি কারনে এই ব্রণ গুলো হয়ে থাকে আমাদের মুখে। এবং এর প্রতিকার সম্পর্কে আলোচনা করা হবে। কি কি কারণে এভ্রন গুলো আমাদের মুখে উঠে থাকে এই সকল বিষয়ে জানলে আমরা অবশ্যই এসকল বিষয় এড়িয়ে চলার চেষ্টা করব। সুতরাং আজকের এই পোস্টটি আপনাদের জন্য খুবই গুরুত্বপূর্ণ হতে চলেছে।

ব্রণ বা ফুসকুড়ি, এগুলো মুখে থাকলেই খুবই খারাপ দেখায়। নিজেকেও অনেক খারাপ লাগে এই সকল কিছু মুখে থাকার কারণে। সুতরাং আমাদের সকলেরই উচিত এই বিষয়ে সঠিক সমাধান খুঁজে নেওয়া। অনেকেই বলে থাকেন বয়সের ক্ষেত্রে এসকল ব্রণ মুখে উঠে থাকে। আসলেই এই কথাটি সঠিক কিনা তা এই পোস্টের মাধ্যমে আমরা জানতে পারবো।

মুখে ছোট ছোট ব্রণ হওয়ার কারণ

এখান থেকে আমরা জানবো কেন মুখে ছোট ছোট ব্রণ হয়ে থাকে। এসকল কারণগুলো জানা থাকলে আমরা এর প্রতিকার সম্পর্কে জানতে পারবো। সুতরাং এখানে আমরা ব্রণ উঠার কারণ গুলো নিয়ে আলোচনা করব এবং পরবর্তী সময়ে ব্রণ দূর করার কার্যকরী উপায় গুলো সম্পর্কে আলোচনা করবো। নিচে মুখের ছোট ছোট ব্রণ হওয়ার কারণ গুলো তুলে ধরা হয়েছে।

  1. বয়সন্ধিকালে টেস্টোস্টেরন ও অ্যান্ডোজেন হরমোনের বৃদ্ধি ও বিভিন্ন হরমোনের ক্রমহ্রাস ঘটতে থাকে। হরমোনের তারতম্য হওয়ার ফলে মুখের ছোট ছোট ব্রণ সমস্যা হয়ে থাকে।
  2. স্টরয়েড জাতীয় খাবার খাওয়া ও স্টরয়েড জাতীয় বিভিন্ন ঔষধ সেবন করার ফলে হরমোন দেখা দেয়। এ সকল ঔষধের পার্শ্বপতিক্রিয়া মুখের ছোট ছোট ব্রণ জন্য দায়ী।
  3. জিনগত ও বংশগত কারণে হরমোন সমস্যা দেখা দেয়। বাবা মায়ের ব্রণ সমস্যা থাকলে পরবর্তীতে সন্তান্দের হয়ে থাকে।
  4. মুখমন্ডলে বিভিন্ন নিম্নমানের প্রসাধনী সামগ্রী ব্যবহার ফলে ব্রণ দেখা দিয়ে থাকে। মহিলা এ ধরনের সামগ্রী ব্যবহার করে ব্রণ সমস্যার সম্মুখীন হয়ে থাকে।
  5. ভাজাপোড়া ও তৈলাক্ত খাবার ও ব্রণের জন্য দায়ী। এসব খাবার ত্বকের তৈলাক্ততা বৃদ্ধি করে এবং মুখের ছোট ছোট ব্রণ সমস্যা বাড়াতে পারে।
  6. পর্যাপ্ত পরিমাণ ঘুম না হওয়ার ফলে এবং হতাশা দুশ্চিন্তা বেশি করার ফলেও অনেক সময় মুখের ছোট ছোট ব্রণ হয়ে থাকে।
  7. তৈলাক্ত ক্রিম ও ফেইশওয়াশ ব্যবহার এ ধরনের মুখের ছোট ছোট ব্রণ জন্য দায়ী।
  8. তাছাড়া জন্মনিয়ন্ত্রণ ও বিভিন্ন ঔষধের পার্শ্বপ্রতিক্রিয়া ও গর্ভাবস্থার জন্য হালকা অ্যাকনি সমস্যা দেখা দেয়।
  9. নিয়মিত ত্বক পরিষ্কার না করলে ত্বকে ধুলোবালি ও বিভিন্ন জীবাণু দ্বারা সংক্রমন ঘটলে এ ধরণের সমস্যা হয়ে থাকে।
  10. ত্বকের তৈলাক্ত বেশি হয়ে থাকলে ব্রণ বেশি হয়ে থাকে।
  11. অতিরিক্ত ট্রান্সপারেন্ড জাতীয় খাবার পিম্পল সমস্যার জন্য দায়ী।
মুখের ব্রণ দূর করার উপায়

মুখের ব্রণ দূর করার উপায়

ব্রণ সমস্যা  প্রতিকারে  কি কি করণীয়

ব্রণ সমস্যার প্রতিকার সম্পর্কে যে করণীয় গুলো রয়েছে সেগুলো জানতে পারবেন এখান থেকে। অর্থাৎ যারা এই বিষয়ে জানার জন্য অনলাইনে এসেছে তারা এখান থেকে অবশ্যই এই সকল বিষয় জেনে নেবেন। আশা করি এসকল বিষয় জেনে আপনি উপকৃত হবেন। এ করণীয়গুলো মেনে চলে আপনি আপনার ব্রণ সমস্যার প্রতিকার ঘটাতে পারেন। সুতরাং এই সকল বিষয় এড়িয়ে চলুন আশা করি একটি সন্তুষ্টজনক ফলাফল আপনি লক্ষ করতে পারবেন। নিচে করণীয় গুলো তুলে ধরা হয়েছে ।

  • নিয়মিত ঠান্ডা পানি দিয়ে মুখ ধৌত করা কিন্তু বেশি পরিমাণে মুখ ধুয়া যাবে না কারণ মুখ বেশি ধুলে ত্বক শুষ্ক হয়ে যেতে পারে।
  • স্যাসিলিক ও গ্লাইকোলিক এসিড সমৃদ্ধ ফেইশ ওয়াশ ব্যবহার করতে হবে।
  • টকজাতীয় আচার খাওয়া যাবে না এক্ষেত্রে মিষ্টিজাতীয় আচার খাওয়া যাবে।
  • সুগারজাতীয় ট্রানপারেণ্ড সমৃদ্ধ খাবার এবং মশলা ও ঝাল যুক্ত খাবার কম খেতে হবে।
  • ফাস্টফুড, জাংক ফুড, বেশি তেল যুক্ত খাবার পরিহার করতে হবে। স্বাস্থ্যকর খাবার বেশি  পরিমাণে খেতে হবে।
  • পর্যাপ্ত পরিমাণে ঘুমাতে হবে এবং দুশ্চিন্তা, মানসিক অবসাদ হতাশা থেকে দূরে থাকতে হবে।
  • ত্বকে ঘৃতকুমারী বা অ্যালোভেরা ব্যবহার করা। ত্রিফলা অর্থাৎ তিনটি ফলের সমষ্টি আমলকি, হরিতকি ও বিভিতকি প্রতিদিন সকালে খালি পেটে একটানা তিন মাস খাওয়া যেতে পারে।
  • ব্রণ সমস্যা বেশি হয়ে থাকলে অ্যান্টিবায়োটিক ক্রিম ব্যবহার করা যেতে পারে।
  • ব্রণ হলে সেখানে হাত লাগানো ও সেটা খুটানো থেকে বিরত থাকতে হবে।
  • ত্বকের জন্য ক্ষতিকর কসমেটিকস ও প্রসাধনী ব্যবহার করা যাবে না।
  • তৈলাক্ত ফেইশওয়াশ ও তেল মুখে ব্যবহার করা যাবে না।
  • তাছাড়া গোলাপ জল দিয়ে মুখ ধৌত করা যেতে পারে।

মুখের ছোট ছোট ব্রণ দূর করার উপায়

বর্তমান সময়ে ব্রণের তুলনায় অনেক ছোট ছোট ব্রণের মত কিছু দেখা যায়। যেগুলো ক্রমান্বয়ে বেশি হয়ে থাকে। এগুলো নিয়ে অনেকেই চিন্তিত থাকেন। আসলে এগুলো ব্রণের ভিন্নরূপ। অনেককেই এগুলোকে ফুসকুড়ি বলে থাকেন। সুতরাং এগুলো যদি আপনার মুখে উঠে থাকে তাহলে কি করে এগুলো দূর করবেন এর উপায় গুলি সম্পর্কে এখানে আলোচনা করা হবে। আশা করি আমাদের দা উপায়গুলোর মাধ্যমে আপনি আপনার মুখের ছোট ছোট ব্রণ গুলো দূর করে নিতে পারবেন। তবে এগুলো দূর হতে কিছু দিন সময় লাগতে পারে আপনি নির্দেশনা অনুযায়ী চলার চেষ্টা করবেন আশা করি আপনি এর প্রতিকার পেয়ে যাবেন। নিচে ছোট ছোট ব্রণ দূর করার উপায় গুলি দেওয়া রয়েছে।

  1. ওমেগা (৩) ফ্যাটি এসিড যুক্ত খাবার যেমন বিভিন্ন ধরনের সামুদ্রিক মাছ খেতে হবে। কারণ সামুদ্রিক মাছে বিদ্যমান ফ্যাটি এসিড অ্যাকনি সমস্যা সমাধানে কার্যকর।
  2. ভিটাক্যারেটিন যুক্ত খাবার যেমন পেপে গাজর খেতে হবে। কারণ এ জাতীয় খাবার ব্রণের দাগ দূর করে।
  3. ম্যাগনেশিয়াম যুক্ত খাবার যেমন লাল চাল, লাল আটা, বাদাম ইত্যাদি খেতে হবে।
  4. পর্যাপ্ত পরিমাণে পানি পান করতে হবে। পাশাপাশি তরমুজ, শসা খেতে হবে কারণ শসা ও তরমুজে প্রচুর পরিমাণে থাকে।
  5. ভিটামিন সি সমৃদ্ধ খাবার টমেটো ও কমলা খেতে হবে এগুলো ব্রণের দাগ ও মুখের উজ্জলতা বৃদ্ধি করে থাকে। তাছাড়া গ্রিণ টি ও ভিনেগার ও এক্ষেত্রে খুবই কার্যকর।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

%d bloggers like this: