শিক্ষা ও জীবন

রোমান্টিক গল্প ২০২২| রোমান্টিক ভালোবাসার গল্প

এ পোস্টের মাধ্যমে আমরা আপনাদের জন্য নিয়ে এসেছি রোমান্টিক কিছু গল্প । ছোট সুন্দর এই গল্পগুলো পড়ার জন্য অনেকেই অনলাইনে অনুসন্ধান করে থাকেন কিন্তু তেমন কোন ওয়েবসাইটে যারা বাংলায় ধরনের গল্প দিয়ে আপনাদের সহযোগিতা করতে পারে। এক্ষেত্রে আপনাদের সহযোগিতার লক্ষ্যে আমরা এই ওয়েবসাইটের মাধ্যমে আপনাদের রোমান্টিক কিছু ছোট গল্প দিয়ে সহযোগিতা করব। অনেকেই রয়েছেন যারা অনলাইনে এ ধরনের গল্প পড়ে সময় কাটান। এছাড়া অনেকেই রয়েছে এই ধরনের গল্প গুলো থেকে আইডিয়া নিয়ে শর্ট ফিল্ম টিক টক লাইকি ভিডিও করে থাকেন। এছাড়া অনেকেই এই ধরনের গল্পগুলো সোশ্যাল মিডিয়া আপলোড করে থাকেন। সকল ক্ষেত্রে ব্যবহারের জন্য অনেকেই সুন্দর রোমান্টিক ছোট গল্প গুলো অনুসন্ধান করেন। যে ক্ষেত্রেই হোক না কেন আমাদের এই গল্পগুলো আপনি ব্যবহার করতে পারবেন নিঃসন্দেহে। আমরা দীর্ঘদিন ধরে অনুসন্ধান এর ফলে সেরা রোমান্টিক গল্প গুলো আপনাদের জন্য নির্বাচন করেছি। তাই বলা যায় আমাদের দাও গল্প গুলো আপনাদের ভালো লাগবে।

সুতরাং যারা এ ধরনের গল্প পড়তে ভালোবাসেন পছন্দ করেন তারা এখান থেকে পড়তে পারবেন এ ধরনের গল্পগুলো। বিভিন্ন ক্ষেত্র থেকে আমরা এ ধরনের গল্পগুলো নির্বাচন করে নিয়েছি। আমরা আশা করি এখানে দেওয়া গল্পগুলো আপনাদের খুবই ভালো লাগবে। এছাড়াও আমাদের দাও গল্পগুলো থেকে সংক্ষিপ্ত আকারে গল্প কাহিনী রেখে আপনার পছন্দের মানুষটিকে পাঠাতে পারবেন। এক্ষেত্রে আপনার পছন্দের মানুষটিকে আরো রোমান্টিক পরিবেশের ছোঁয়া দিতে পারবেন। সুতরাং পোস্টটি আপনাদের জন্য গুরুত্বপূর্ণ।

নতুন রোমান্টিক গল্প

নতুন নতুন রোমান্টিক গল্প পড়তে ভালোবাস পছন্দ করেন। তাহলে এই পোস্টটি আপনাদের জন্য অধিক গুরুত্বপূর্ণ। এখানে আমরা আপনাদের জন্য নির্বাচন করেছি সুন্দর সুন্দর কিছু রোমান্টিক গল্প। যেগুলো আপনাদের ভাল লাগার মত আপনি চাইলে আপনার পছন্দের মানুষটিকে এ ধরনের গল্প গুলো শেয়ার করতে পারেন। আমরা সবসময় চেষ্টা করি আপনাদের কাছে নতুন গল্পগুলো পৌঁছে দেওয়ার।

সাধারণত আমার দ্বারা স্বয়ংসম্পূর্ণ প্রেমের গল্প লেখা হয়ে ওঠে না। হয়তো এটা হেমন্ত। তবু কেন জানি না, কেমন বসন্তের হাওয়া মনে প্রেমের ভাব জাগিয়ে তুলছে। তাই লেখার চেষ্টা করছি একটা। একটু বড় হয়ে গেল। ধৈর্য ধরে পড়বেন।
*                                          *                                     *
❤ ভালো থাক আমার গল্পের চরিত্র রা❤
-তুই এলি কেন? না এলেই তো পারতিস?
– এই শোন! সারাদিনের অনেক ধকলের পর শুধু তোরই কথায় এসেছি কিন্তু। আর রাস্তায় জ্যাম থাকলে আমি কী করব রে? সবসময় রাগ দেখাবি না ভালো লাগে না।
– তা লাগবে কেন! শ্রীতমা হলে তো বসে বসে রাগ ভাঙাতিস।
– আরে! She is just my friend. এখানে ও কোথা থেকে চলে এলো? আশ্চর্য তো!
– কেমন just friend জানতে আমার বাকি নেই। রাত জেগে whats app এ মেসেজ। ফোন কল। আমি কিছু বুঝি না ভেবেছিস?
– এই শোন! একদম ফালতু কথা বলবি না। কাজ থাকে। তাই বলি। আর তুই এটাও জানিস, she is my group partner.
– Life partner ও বানাবি ক’দিন পর। তখন আমাকে এসে বলবি, লাবণ্য! ব্যপারটা ঠিক work out করছে না বুঝলি। we are over.
– এই যা তো। সত্যিই আমি আর পারছি না। I am done.  Break up  করলাম তোর সাথে। আমি একাই থাকবো। ভালো থাকব।
– সেই তো রে! এখন তো এটাই বলবি। আমাকে একাই তো করে দিবি। আমি আর তোর কে বল?
– হ্যাঁ! কেউ নোস তুই আমার। উড়ে এসে জুড়ে বসা একটা আপদ। Bye. যোগাযোগ করার চেষ্টা করিস না আর।
জুতো মশমশিয়ে নদীর ধার থেকে উঠে চলে গেল ধ্রুব। আর লাবণ্য বসে রইল একা। মনে অভিমানের মেঘটা বেশ ভালোই ঘনীভূত হয়েছে। বৃষ্টিটাও নামল বলে।

রোমান্টিক গল্প

রোমান্টিক গল্প অনুসন্ধানকারী দের জন্য এই পোস্টটি খুবই গুরুত্বপূর্ণ ভূমিকা পালন করবে। বাছাইকৃত সুন্দর রোমান্টিক গল্প গুলো আমরা আপনাদের জন্য নিয়ে এসেছি নিচে গল্প গুলো দেওয়া রইল।

একদিন হঠাৎ বেজে উঠল লাবণ্যর দরজার ঘন্টি। দরজা খুলেই অবাক লাবণ্য। ধ্রুব এতোসকালে, সাতদিন পর? কী ব্যপার? ” ঘরে চল কথা আছে” বলে ধ্রুবই তাকে ঠেলে ঘরের ভিতর ঢুকে পড়ল। “বল কী বলবি?” লাবণ্য রাগত গলায় জিজ্ঞাসা করে। ধ্রুব বলে ওঠে,” তুই রাগ কমাবি না কী বল? সবসময় শ্রীতমা শ্রীতমা আর শ্রীতমা। কে ঐ শ্রীতমা। এক কথা বলে কানের পোকা নাড়িয়ে দিস? ঢঙ করবি না একদম। ভালো করে কথা বলবি কিনা বল। আমার মাথা কিন্তু গরম হয়ে যাচ্ছে।” অভিমানী লাবণ্য বলে ওঠে,” কেন শ্রীতমা পাত্তা দেয়নি বুঝি?
সাত দিনেই সব গুটিয়ে গেল? আমি তো একটা আপদ। এসেছিস কেন আমার কাছে!” ধ্রুব লাবণ্যর মুখটা নিজের মুখের কাছে এনে একটা আঙুল দিয়ে ওর ঠোঁট চেপে ধরে ফিসফিসিয়ে বলল,” চুপ! একদম চুপ। তুই আমার কী জানিস না তুই? তুই আমার পাগলি। যতই স্বর্গের অপ্সরা নেমে আসুক মর্ত্যে, যতই তাদের রূপে মুগ্ধ হই। তবু আমার শেষ আশ্রয় যে তুই ক্ষেপি। হ্যাঁ হতে পারে তোকে প্যাঁচার মতো দেখতে কিন্তু তুই শুধু আমার।
আর আমি তোর। বুঝলি! রাগ দ্যাখাচ্ছে। মেরে নাকটা ফাটিয়ে দেব।” কাঁদো কাঁদো প্রায় লাবণ্য ধ্রুবর বুকে ঘুঁষি মারতে মারতে বাচ্ছাদের মত হাউ হাউ করে কেঁদে উঠল। ধ্রুব তাকে জাপটে জড়িয়ে ধরে বলল,” ওলেবাবালে। বকেছি আমার ক্ষেপিটাকে! আচ্ছা এসো আদর করে দিই।” আদর খেতে খেতে অশ্রু ভেজা চোখে মুখ তুলে চেয়ে লাবণ্য বলল,” আমাকে ছেড়ে কখনও যাবি না তো?” ধ্রুব ওর নাকটা লাবণ্যর নাকে ঘষে দিয়ে পিছন থেকে ওকে জড়িয়ে ধরে বলল, ” তুই যেতে দিলে তবে না যাবো! আর শোন একদম শ্রীতমা শ্রীতমা করবি না তুই।”
– ও আমার মুখে ওর নাম শুনলে বুঝি গা জ্বলে?
– তোর প্রবলেমটা কী বলতো। তুই শুধু ……
এইভাবে আবারও ঝগড়া দিয়েই শুরু হল নতুন প্রেমের গান। এক নতুন আশা, চির সঙ্গ লাভের প্রচেষ্টা।।❤
ভালো থাক আমার গল্পের চরিত্র রা❤
Back to top button
Close