Skip to content

সহবাসের দোয়া বাংলায় ও আরবিতে| সহবাসের আগে ও পরের দোয়া

সহবাসের দোয়া বাংলায় ও আরবিতে

সহবাসের দোয়া বাংলায়: আসসালামু আলাইকুম প্রিয় ভিউয়ার্স আমরা আজকে আপনাদের সকলের জন্য নিয়ে এসেছি সহবাসের দোয়া বাংলায় সম্পর্কিত একটি আলোচনা। আমাদের আজকের আলোচনা শেষে আমরা আপনাদের মাঝে সহবাসের দোয়াটি বাংলা ভাষায় তুলে ধরব। আপনারা যারা সহবাসের দোয়া সম্পর্কে অবগত নন এবং যারা এই দোয়াটি সম্পর্কে জানতে চেয়েছেন তারা আমাদের আজকের এই পোস্টের মাধ্যমে সহবাসের দোয়াটি বাংলা ভাষায় সংগ্রহ করতে পারবেন। আপনি আমাদের আজকের এই পোস্ট থেকে সহবাসের গুরুত্ব বুঝতে পারবেন। কেননা এই দোয়াটি সকলের জীবনে প্রয়োজনীয় একটি দোয়া। এই দোয়া পরে সহবাস করলে স্বামী ও স্ত্রীর মাঝে শয়তান প্রবেশ করতে পারে না। তাইতো সকলের জীবনে এই দোয়াটির গুরুত্ব রয়েছে। আপনারা যারা সহবাসের দোয়া বাংলা ভাষায় জানতে চেয়েছেন তারা আমাদের পোস্ট থেকে দোয়াটি সংগ্রহ করুন। এক্ষেত্রে আমরা আজকে আপনাদেরকে সঠিক তথ্য দিয়ে সহায়তা করব।

সহবাস বলতে স্বামী স্ত্রীর যৌন মিলনকে বুঝিয়ে থাকে। মহান আল্লাহ তাআলা বিয়ের মাধ্যমে স্বামী ও স্ত্রীর যৌন মিলনকে হালাল করেছেন। মহান আল্লাহ তাআলা স্বামী স্ত্রীর যৌন মিলনের মাধ্যমে বংশ বৃদ্ধি করণের প্রক্রিয়া চালু করেছেন। বিয়ের মাধ্যমে যৌন মিলন এবং বংশ বৃদ্ধি করণে মহান আল্লাহ তাআলা কল্যাণ দিয়েছেন। বিয়ে এমন একটি বৈধ ও হালাল সম্পর্ক যার মাধ্যমে স্বামী-স্ত্রী প্রতিটি জৈবিক চাহিদা আল্লাহ তায়ালা হালাল করে দিয়েছেন। বিয়ের মতো পবিত্র বন্ধনে আবদ্ধ হওয়ার কারণে স্বামী-স্ত্রীর জন্য যৌন মিলন বা সহবাস হালাল হয়ে যায়। স্বামী স্ত্রীর যৌন মিলনে বা সহবাসের মাধ্যমে একটি সন্তানের জন্ম হয়ে থাকে। তবে স্বামী স্ত্রীর যৌন মিলন বা সহবাসের বেশ কিছু নিয়ম ও নীতিমালা রয়েছে। স্বামী-স্ত্রীর মিলনের পূর্বে অবশ্যই স্বামী স্ত্রীকে সহবাসের দোয়া পড়ে সহবাস শুরু করতে হবে। কেননা সহবাসের দোয়া ছাড়া স্বামী স্ত্রী সহবাসে লিপ্ত হলে স্বামী স্ত্রীর মাঝখানে তৃতীয়জন হিসেবে শয়তানের উপস্থিতি থাকে। আর শয়তানের সব থেকে পছন্দ হচ্ছে যে অন্যতম লজ্জাস্থানগুলো যেগুলো থেকে শয়তান মজা পেয়ে থাকে। তাই প্রতিটি স্বামী স্ত্রীর সহবাস করার পূর্বে অবশ্যই সহবাসের দোয়া পড়ে এবং নিয়ম নীতি মেনেই সহবাস করতে হবে।

সহবাসের দোয়া বাংলায়

আপনাদের মাঝে সহবাসের দোয়াটি বাংলা ভাষায় তুলে ধরব। সহবাসের দোয়াটি আপনাদের সকলের জীবনে প্রয়োজনীয় একটি দোয়া। কেননা স্বামী স্ত্রীর সহবাসের সময় সহবাসের দোয়া না করে যৌন মিলনে লিপ্ত হলে শয়তান যৌনতাই নিজেকে জড়ানোর উদ্দেশ্যে স্বামী স্ত্রীর মাঝে উপস্থিত হয়ে থাকে। এজন্যই প্রতিটি স্বামী স্ত্রী সহবাস করার যৌন মিলনের পূর্বে অবশ্যই সবাই সে দোয়াটি পড়ে সহবাস শুরু করতে হবে। সহবাসের দোয়াটি পড়ে সহবাস শুরু করলে শয়তান সেখানে প্রবেশ করতে পারবে না। এই দোয়া পড়ে সবার করলে মহান আল্লাহ তাআলা স্বামী-স্ত্রীর সহবাসের লিপ্ত কালীন সময়টাকে নেকীতে পরিণত করে দেবেন। অনেকেই এই দোয়াটি সম্পর্কে অবগত নয় তাই আজকে আমরা নিয়ে এসেছি সম্পূর্ণ বাংলা ভাষায় সহবাসের দোয়াটি। আপনারা যারা আরবি ভাষায় বা কুরআন পড়তে জানেন না তারাও আমাদের আজকের এই পোস্ট থেকে দোয়াটি সংগ্রহ করে আপনি আপনার জীবনে কাজে লাগাতে পারবেন। নিচে বাংলা ভাষাতে সহবাসের দোয়াটি তুলে ধরা হলো:

বাংলা উচ্চারণ : বিসমিল্লাহি আল্লাহুম্মা জান্নিবনাশ শায়ত্বানা, ওয়া জান্নিবিশ শায়ত্বানা মা রাজাক্বতানা।

অর্থ : ‘হে আল্লাহ! তোমার নামে আরম্ভ করছি। তুমি আমাদের নিকট হতে শয়তানকে দূরে রাখ। আমাদের যে সন্তান দান করবে (এ মিলনের ফলে)— তা থেকেও শয়তানকে দূরে রাখো।’

সহবাসের নিয়ম

এ বিষয়ে সাধারণ কিছু নিয়ম-নীতি সম্পর্কে জানার জন্য অনেকেই অনলাইন অনুসন্ধান করেন বিষয়টি লজ্জার কিছু নেই অবশ্যই জানা উত্তম। আপনারা যারা এই বিষয় সম্পর্কে জানতে আগ্রহী তারা অবশ্যই জানতে সক্ষম হবেন আমরা আপনাদের সহযোগিতার জন্য এ বিষয়ে কিছু তথ্য প্রদান করব এছাড়াও গুরুত্বপূর্ণ বেশ কিছু দোয়া রয়েছে যেগুলো সম্পর্কে জানতে পারবেন আমাদের আলোচনায় বাংলা ও আরবিতে। তবে বর্তমানে আমরা আপনাকে এখানে এর কিছু নিয়ম দিয়ে সহযোগিতা করছি যেগুলো নিয়ম মেনে সহবাস করতে পারেন। অবশ্যই এই সমস্ত নিয়মের প্রতি গুরুত্ব প্রদান করতে হবে আপনাকে। এক্ষেত্রে আপনি বিভিন্ন ক্ষেত্রে উপকৃত হবেন বলে জানানো যাচ্ছে।

১. স্বামী-স্ত্রী উভয়ই পাক পবিত্র থাকবে।
২. “বিসমিল্লাহ” বলে সহবাস শুরু করা মুস্তাহাব। ভুলে গেলে যদি বীর্যপাতের পূর্বে স্মরণ হয় তাহলে মনে মনে পড়ে নিতে হবে।
৩. সহবাসের পূর্বে সুগন্ধি ব্যবহার করা। যা আল্লাহর রাসুলের সুন্নাত।
৪. সব ধরনের দুর্গন্ধ জাতীয় জিনিস পরিহার করা। উল্লেখ্য যে,  ধূমপান কিংবা অপরিচ্ছন্ন থাকার কারণে দুর্গন্ধ সৃষ্টি হয়। আর এতে কামভাব কমে যায়। আগ্রহের স্থান দখল করে নেয় বিতৃষ্ণা।
৫. কেবলামুখি হয়ে সহবাস না করা।
৬. একেবারে উলঙ্গ না হওয়া।
৭. স্ত্রীকে পরিপূর্ণ তৃপ্তি দান করার পূর্বে বিচ্ছিন্ন না হওয়া।
৮. বীর্যপাতের সময় মনে মনে নির্ধারিত দোয়া পড়া। কেন না যদি সে সহবাসে সন্তান জন্ম নেয় তাহলে সন্তান শয়তানের প্রভাব মুক্ত থাকবে।
৯. স্ত্রীর হায়েজ-নেফাসের (ঋতুকালীন) সময় সহবাস না করা।
১০. চন্দ্র মাসের প্রথম এবং পনের তারিখ রাতে মিলিত না হওয়া।
১১. স্ত্রীর জরায়ুর দিকে চেয়ে সহবাস না করা।
১২. বিদেশে বা সফরে যাওয়ার আগের রাতে স্ত্রী সহবাস না করা।
১৩. সহবাসের সময় স্ত্রীর সহিত বেশি কথা না বলা।
১৪. জোহরের নামাজের পরে স্ত্রী সহবাস না করা।
১৫. ভরা পেটে স্ত্রী সহবাস না করা।
১৬. উল্টাভাবে স্ত্রী সহবাস না করা।
১৭. স্বপ্নদোষের পর গোসল না করে স্ত্রী সহবাস না করা।

সহবাসের আগে ও পরের দোয়া

সহবাসের আগেও পরে দোয়া সম্পর্কে জানার প্রয়োজনীয়তা রয়েছে অবশ্যই। ইসলামে সকল বিষয়ে নিয়ম-নীতি রয়েছে আর সেই সমস্ত নিয়ম নীতি মানার মাধ্যমে আমরা ইহকাল এবং পরকালে উপকৃত হব। এক্ষেত্রে আমাদের ছোট বড় সমস্ত নিয়ম নীতি মেনে চলতে হবে এক্ষেত্রে আমরা আজকে আপনাদেরকে যে বিষয়ে দোয়া তুলে ধরব আপনি চাইলে এই সমস্ত দোয়া এখান থেকে মুখস্ত করে সহবাসের আগে ও পরে করতে পারেন। এর ফজিলত সম্পর্কে জানতে পারবেন অবশ্যই এটি গুরুত্বপূর্ণ আপনারা সকলেই এ দোয়াটি পড়তে পারেন।

اَلْحَمْدُ لِلّٰهِ الَّذِي جَعَلَ مِنَ الْمَاءِ بَشَرًا 

অর্থঃ প্রশংসা আল্লাহর যিনি পানি থেকে মানুষ সৃষ্টি করেছেন।

সহবাসের দোয়া আরবিতে

অনেক মুসলিম ভাইয়েরা রয়েছেন যারা আরবিতে এই দোয়াটি খুঁজে থাকেন। যারা মূলত আরবি পড়তে পারেন এক্ষেত্রে তাদের জন্য সুস্পষ্টভাবে পড়তে আরবি ভাষায় দোয়াটি তুলে ধরা হচ্ছে। এছাড়াও যারা আরবিতে পড়তে পারেন না বাংলা পড়ার জন্য আগ্রহী তারা ওগুলোকে আলোচনার মাধ্যমে বাংলায় দোয়াটি পেয়ে যাবেন। এক্ষেত্রে আমরা সহবাসে দোয়া আরবিতে আপনাদের মাঝে উপস্থাপন করছি আশা করছি এই দোয়াটি পড়ে আপনি উপকৃত হবেন।

بِسْمِ اللَّهِ ، اللَّهُمَّ جَنِّبْنَا الشَّيْطَانَ ، وَجَنِّبْ الشَّيْطَانَ مَا رَزَقْتَنَا

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

%d bloggers like this: