ট্রেন সময়সূচী

চিত্রা এক্সপ্রেস ট্রেনের সময়সূচী, টিকেট ও ভাড়ার তালিকা

চিত্রা এক্সপ্রেস ট্রেনের সময়সূচী ভাড়ার তালিকা ছুটির দিনসহ টিকিট কাটার নিয়ম ও বিস্তারিত সকল বিষয়ে জানতে আগ্রহী হয়ে থাকলে আজকের পোস্টটি আপনার জন্য খুবই গুরুত্বপূর্ণ হতে চলেছে। চিত্রা এক্সপ্রেস ট্রেনটি হচ্ছে বাংলাদেশ রেলওয়ে কর্তৃক পরিচালিত আন্তঃনগর ট্রেন। দীর্ঘদিন ধরে এই ট্রেনটি আমাদেরকে যাত্রী সেবা দিয়ে আসছেন। এই ট্রেনটি ঢাকা থেকে খুলনা পথে চলাচল করে থাকেন। তিনটি বগি সংখ্যা হচ্ছে বারোটি এবং এখানে রয়েছে ৮৮১ টি আসুন। এক্ষেত্রে এই আসুন মোতাবেক কতজন ব্যক্তি একসাথে ট্রেনটিতে ভ্রমণ করার সুযোগ রয়েছে। এছাড়াও অনেক সময় ট্রেনটিতে বগি বাড়ানোর বিষয়টি লক্ষ্য করে থাকি আমরা। বিশেষ করে ঈদের সময়ে এই চিঠিতে আরও বেশকিছু অভিযুক্ত করা হয়ে থাকে এর ফলে অনেক যাত্রী একসাথে ভ্রমণ করতে পারেন।

তিনটি বেশ জনপ্রিয়তা অর্জন করেছে ঢাকা থেকে খুলনা কিংবা খুলনা থেকে ঢাকা যাওয়া আসার জন্য অনেকেই এই চিত্রা এক্সপ্রেস ট্রেনটি নির্বাচন করে নিয়েছেন। বাংলাদেশ রেলওয়ে পরিচালিত এই ট্রেনটি বেশ গতি সম্পন্ন একটি ট্রেন । চিঠিতে এসি নন এসি কেবিন এর ব্যবস্থা রয়েছে এক্ষেত্রে শ্রেণীবিন্যাস সহ সকল কেবিনের ভাড়া সঠিকভাবে প্রদানের জন্য দীর্ঘ সময় ব্যয় করেছি আমরা। এক্ষেত্রে আপনাদের উদ্দেশ্যে জানানো যাচ্ছে আপনারা যারা এতে যদি ভ্রমণ করতে যাচ্ছেন ভ্রমণ সহযোগী তথ্যগুলো সম্পর্কে জানার আগ্রহ রয়েছে তারা আমাদের ওয়েবসাইটের মাধ্যমে একটি ভ্রমণের জন্য যে সকল বিষয় সম্পর্কে জানার প্রয়োজন মনে করছেন সেই সমস্ত বিষয়ে সঠিক তথ্য প্রদান করা হয়েছে আজকের আলোচনায়।

চিত্রা এক্সপ্রেস ট্রেনের সময়সূচী

সময়সূচি সম্পর্কিত তথ্যগুলো অবশ্যই গুরুত্বের সাথে জানতে হবে বলে মনে করে থাকি আমরা। অন্য সকল যানবাহন চলাচল করার জন্য অবশ্যই সময়সূচী সম্পর্কে সঠিক ধারণা রাখা সম্ভব হয় না তবে ট্রেনের ক্ষেত্রে এটি কিছুটা সম্ভব। এর কারণ ট্রেন যাত্রা শুরু করার পরবর্তী সময়ে প্রায় নির্দিষ্ট সময়ে যাত্রা সম্পন্ন করে থাকেন। এক্ষেত্রে আপনারা যারা চিত্রা এক্সপ্রেস ট্রেনটির সময়সূচি সম্পর্কে জানতে আগ্রহী তাদেরকে আমরা সময়সূচী প্রদান করছি।

স্টেশনের নাম ছুটির দিন ছাড়ায় সময় পৌছানোর সময়
ঢাকা টু খুলনা সোমবার ১৯ঃ০০ ০৩ঃ৪০
খুলনা টু ঢাকা সোমবার ০৯ঃ০০ ১৭ঃ৫৫

চিত্রা এক্সপ্রেস ট্রেনের ছুটির দিন

আমরা সকলেই জেনে থাকি ট্রেনগুলো প্রায় সকলেই সপ্তাহিক ছুটি কাটিয়ে থাকেন এই দিনে ট্রেন চলাচল বন্ধ রাখেন। এক্ষেত্রে চিত্রা এক্সপ্রেস ট্রেনটি কি বার বন্ধ থাকে এ বিষয়ে সম্পর্কে জানতে আগ্রহী রয়েছে অনেকে এর কারণ ভ্রমণের জন্য নির্ধারিত দিনে ট্রেন বন্ধ থাকবে এটি চায়না সকলেই। তাইতো পূর্বেই এই বিষয় সম্পর্কে জানাতে কাজ করেছি আমরা। এক্ষেত্রে আজকের আলোচনায় চিত্রা এক্সপ্রেস ট্রেনের ছুটির দিন উল্লেখ করেছি নিচে।

স্টেশনের নাম ছুটির দিন
ঢাকা টু খুলনা সোমবার
খুলনা টু ঢাকা সোমবার

চিত্রা এক্সপ্রেস ট্রেনের সময়সূচী

আমরা প্রতিনিয়ত চেষ্টা করে থাকি ট্রেনগুলোর সময়সূচী সঠিক ভাবে উপস্থাপনের জন্য। এক্ষেত্রে ট্রেনগুলো তাদের সময়সূচি পরিবর্তন করে থাকলে আমরা সাথে সাথেই আমাদের ওয়েবসাইটে সময়সূচি পরিবর্তন করে থাকি। তাইতো সময়সূচী সম্পর্কিত আলোচনার মাধ্যমে আজকে তুলে ধরব চিত্রা এক্সপ্রেস ট্রেনটি সময়সূচী। এক্ষেত্রে আপনি আপনার গন্তব্যস্থলে পৌঁছানোর সময় এবং ট্রেন ছাড়ার সময় সম্পর্কে সঠিকভাবে জানতে পারবেন নিজেই সময়সূচী তালিকা প্রদান করা হলো।

বিরতি স্টেশন নাম খুলনা থেকে (৭৬৩) ঢাকা থেকে (৭৬৪)
নওয়াপাড়া ০৯ঃ৩১ ০২ঃ৫২
যশোর ১০ঃ০২ ০২ঃ২০
মোবারকগঞ্জ ১০ঃ৪৭
কোটচাদপুর ১১ঃ০০ ০১ঃ৪১
দর্শনা হাট ১১ঃ২৫
চুয়াডাঙ্গা ১১ঃ৪৬ ০০ঃ৫৫
আলমডাঙ্গা ১২ঃ০৭ ০০ঃ৩৫
পোড়াদহ ১২ঃ২৪ ০০ঃ১৬
মিরপুর ১২ঃ৩৭
ভেড়ামারা ১২ঃ৪৯ ২৩ঃ৫৫
ঈশ্বরদী ১৩ঃ১৫ ২৩ঃ১৫
চাট্মোহর ১৩ঃ৪৮ ২২ঃ৪৪
বড়াল্ব্রীজ ১৪ঃ০৯ ২২ঃ২৯
উল্লাপাড়া ১৪ঃ৩০ ২২ঃ০৯
শ,এম,ম,আলী ১৪ঃ৪৯ ২১ঃ৫১
বঙ্গবন্ধু সেতু পূর্ব ১৫ঃ৪৫ ২১ঃ১৫
বিমানবন্দর ১৭ঃ২২ ১৯ঃ২৭

চিত্রা এক্সপ্রেস ট্রেনের ভাড়ার তালিকা

আপনারা যারা চিত্রা এক্সপ্রেস ট্রেনের ভাড়ার তালিকা সম্পর্কে জানতে আগ্রহ কাজ করছেন, তাদের সহযোগিতায় কাজ করেছি আমরা। বিষয়ভিত্তিক আলোচনা আপনাদের সামনে উপস্থাপন করা হচ্ছে চিত্রা এক্সপ্রেস ট্রেনের ভাড়ার তালিকা। অবশ্যই ভাড়া তালিকা সম্পর্কে জানার প্রয়োজন রয়েছে এক্ষেত্রে যাত্রার খরচ সম্পর্কে ধারণা রাখা সম্ভব হয় । নিচে ভাড়ার তালিকা প্রদান করা হলো :

আসন বিভাগ টিকেটের মূল্য (১৫ভ্যাট)
শোভন চেয়ার ৫০৫ টাকা
প্রথম সিট ৬৭০ টাকা
প্রথম বার্থ ১০০৫  টাকা
স্নিগ্ধা ৮৪০ টাকা
এসি সিট ১০০৫ টাকা
এসি বার্থ ১৫০৫ টাকা

চিত্রা এক্সপ্রেস এখন কোথায়

চিত্রা এক্সপ্রেস যেটি এই মুহূর্তে কোথায় অবস্থান করছেন এই বিষয় সর্ম্পকে জানতে হলে আপনাকে এসএমএসের মাধ্যমে এই বিষয় সর্ম্পকে জানতে হবে অনলাইন এর মাধ্যমে বিশেষ সম্পর্কে ধারণা দেওয়ার পদ্ধতি এখনও কার্যকর হয়নি সুতরাং আপনারা চাইলে টাকা খরচ দিয়ে ট্রেনের অবস্থান জানতে পারেন।

Back to top button
Close