ট্রেন সময়সূচী

পাহাড়িকা এক্সপ্রেস ট্রেনের সময়সূচী, টিকেট ও ভাড়ার তালিকা

আপনি কি পাহাড়িকা এক্সপ্রেস ট্রেনটি সম্পর্কে জানতে চান ? আপনি যদি এই দিনটি সম্পর্কে অনলাইনে অনুসন্ধান করে আমাদের ওয়েবসাইটটিতে এসে থাকেন তাহলে সঠিক জায়গায় এসেছেন। এই প্রশ্নের মাধ্যমে আমরা আপনাকে পাহাড়িকা এক্সপ্রেস ট্রেনটি সম্পর্কে বিস্তারিত তথ্য দিয়ে সহযোগিতা করতে পারি। যেগুলো সম্পর্কে জানলে আপনি নিরাপদ ভ্রমণ নিশ্চিত করতে পারবেন। এছাড়াও সিদ্ধান্ত নিতে পারবেন এই পেজটিতে আপনাদের ভ্রমণ করা ঠিক হবে কিনা। পোস্টের মাধ্যমে আপনি জানতে পারবেন ট্রেনের পরিচয়। সময়সূচী টিকিট অর্থাৎ ভাড়ার মূল্য। এছাড়া জানতে পারবেন স্টেশন বিরোধী সময়সূচী। ছুটির দিনসহ বিস্তারিত সকল তথ্য।

সুতরাং আপনারা যারা এই দিনটিতে ভ্রমণের সিদ্ধান্ত নিয়েছেন তারা অবশ্যই পুরো পোস্টটি মনোযোগ সহকারে পড়বেন। এতে করে ট্রেনটি সম্পর্কে বিস্তারিত জ্ঞান লাভ করতে পারবেন। এই পোষ্টের মাধ্যমে আপনি জানতে পারবেন কি কি যাত্রী সেবা দেওয়া হয় এই ট্রেনে।

এই সকল বিষয়ে বিস্তারিত জানার জন্য পুরো পোস্টটি মনোযোগ সহকারে পড়তে হবে। এতে করেই আপনি সঠিক তথ্য নিয়ে ভ্রমণ করতে পারবেন। আমরা দীর্ঘদিন চেষ্টার ফলে এই সকল বিষয় আপনাদের সামনে উপস্থাপন করতে পারছি।

পাহাড়িকা এক্সপ্রেস ট্রেনের সময়সূচী

ভ্রমণের ক্ষেত্রে সময়সূচী কতটা গুরুত্বপূর্ণ সেটি আমরা সকলেই জানি। অনেকেই রয়েছে যারা ভ্রমণ করতে চায় কিন্তু ট্রেনের সময়সূচী গুলো সম্পর্কে জ্ঞান নেই। অনেক সময় দেখা যায় ট্রেনের সময়সূচি গুলো একটু ব্যতিক্রম হয়ে থাকে । তা ভ্রমণ এর পূর্বে সময়সূচী সম্পর্কে জ্ঞান লাভ করবেন। অনেকক্ষেত্রে দেখা যায় সঠিক সময়ে ট্রেনে উঠতে কোন সমস্যা হয় না। কিন্তু আপনার গন্তব্য স্থানে অনেক রাতে গিয়ে নামিয়ে দেওয়া হয়। এর ফলে আপনি সুন্দরভাবে বাসায় পৌঁছানোর জন্য কোন গাড়ি খুঁজে পান না। এই ধরনের সমস্যায় যেন পড়তে না হয় তাই সময়সূচী সম্পর্কে জানবেন। নিচে সময়সূচী দাওয়া হল।

স্টেশন ছুটির দিন ছাড়ায় সময় পৌছানোর সময়
চট্রগ্রাম টু সিলেট সোমবার ০৯ঃ০০ ১৭ঃ৫০
সিলেট টু চট্রগ্রাম শনিবার ১০ঃ১৫ ১৯ঃ৩৫

পাহাড়িকা এক্সপ্রেস ট্রেনের ভাড়া তালিকা

আমরা সকলেই জানি ট্রেনে রয়েছে আসন ব্যবস্থা। অর্থাৎ আপনি আপনার স্বাধীনতা অনুযায়ী নির্বাচন করে নিতে পারবেন আপনার জন্য উপযুক্ত আসন। যদি চান বেশি অর্থ ব্যয় করে উন্নত মানের আসন নির্বাচন করে আরামদায়ক ভ্রমণ করতে পারবেন। এবং চাইলে কম অর্থ ব্যয় করে ভ্রমণ করতে পারবেন। এ ক্ষেত্রে অনেকেই ভ্রমণের পূর্বে আসনের মূল্য সম্পর্কে জানতে চাই। তাদের জন্য আমরা এখানে পাহাড়িকা এক্সপ্রেস ট্রেনের ভাড়ার তালিকা টি প্রদান করছি। খুব সহজেই এখান থেকে জেনে নিতে পারবেন কোন আসন এর মূল্য কত নির্ধারণ করা হয়েছে এই ট্রেনে।

আসন বিভাগ টিকেটের মূল্য (১৫ভ্যাট)
শোভন চেয়ার ৫০৫ টাকা
স্নিগ্ধা ৯৬৬ টাকা
এসি সিট ১১৫৬ টাকা
এসি বার্থ ১৭৮১  টাকা

পাহাড়িকা এক্সপ্রেস ট্রেনের বিরতি স্টেশন ও সময়সূচী

অনেকেই একে স্টেশন থেকে অন্য স্টেশনে যাওয়ার জন্য এই ট্রেনটিতে উঠে থাকেন। তাদের জন্য এই বিরতির স্টেশন সময়সূচী সম্পর্কে জানা দরকার। এছাড়াও অলস পূর্ণ ভ্রমণ থেকে বাঁচতে স্টেশন বিরতি সময়সূচী সম্পর্কে জানুন। পাহাড়িকা এক্সপ্রেস এই দীর্ঘ পথ পাড়ি দেওয়ার জন্য ১৪ টি স্টেশনে বিরতি রাখেন। স্টেশন গুলোর নাম এবং সময়সূচী দাওয়া হল।

বিরতি স্টেশন নাম ছাড়ায় সময় পৌছানোর সময়
ফেনী ১০ঃ৩১ ১৭ঃ৫০
নাঙ্গলকোট ১১ঃ০৪ ১৭ঃ২১
লাকসাম ১১ঃ২৫ ১৭ঃ০০
কুমিল্লা ১২ঃ০৫ ১৬ঃ৩২
কসবা ১২ঃ৪৭ ১৫ঃ৪২
আখাউড়া ১৩ঃ২০ ১৫ঃ১০
হরষপুর ১৩ঃ৫৫ ১৪ঃ১৯
নওয়াপাড়া ১৪ঃ১৯ ১৩ঃ৪০
শায়েস্তাগঞ্জ ১৪ঃ৪৫ ১৩ঃ১২
শ্রীমঙ্গল ১৫ঃ২৬ ১২ঃ২৯
ভানুগাছ ১৫ঃ৪৯ ১২ঃ০২
শমসের নগর ১৬ঃ০০ ১১ঃ৫৫
কুলাউড়া ১৬ঃ২৬ ১১ঃ২৪
মাইজগাঁও ১৭ঃ০৮ ১০ঃ৫৩
Back to top button
Close